হাটহাজারীর ৪ পয়েন্টে ডিম ছেড়েছে মা মাছ

0

বিশ্বের একমাত্র জোয়ার-ভাটার মিঠাপানির প্রাকৃতিক মৎস্য প্রজননক্ষেত্র হালদা নদীতে মা মাছ (রুই, কাতাল, মৃগেল ও কালিবাইশ) ডিম ছেড়েছে। শনিবার (২৫ মে) রাত পৌনে ৯টা থেকে নদীতে জেলেদের জালে বাড়তে থাকে ডিমের পরিমাণ।

হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রুহুল আমিন জানান, শনিবার রাত সাড়ে ৮টার পর থেকে হালদা নদীর চারটি পয়েন্টে মা মাছ ডিম ছাড়তে শুরু করে। তবে রাত ১২টার দিকে পূর্ণমাত্রায় ছাড়ার পর জেলেরা ডিম সংগ্রহে নেমে পড়ে।

যে চারটি পয়েন্টে মা মাছ ডিম ছেড়েছে সেগুলো হলো রামদাস মুন্সীর হাট, খলিফার ঘোনা, নাপিতের ঘোনা ও আজিমের ঘাট। হালদা নদী গবেষক ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মো. মনজুরুল কিবরিয়া বলেন, রাতে জোয়ার আসার পর মা মাছ ডিম ছেড়েছে। তবে পরিমাণে কম।

স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন হালদার সদস্য এসএম মুজিব বলেন, নদীতে এই মুহূর্তে প্রায় ৩৫০টি নৌকা আছে। এসব নৌকায় করে জেলেরা ডিম সংগ্রহ করছে। জেলেদের কেউ এক বালতি, কেউ ২-৩ বালতি পর্যন্ত ডিম সংগ্রহ করেছে। একেকজন ৫-৬ কেজি পর্যন্ত সংগ্রহ করেছে। আরও ডিম ছাড়ার অপেক্ষায় নদীতে আছে জেলেরা।

হাটহাজারী উপজেলা জ্যেষ্ঠ মৎস্য কর্মকর্তা মো. আজহারুল আলম বলেন, সংগ্রহকারীরা হাটহাজারী উপজেলার মদুনাঘাট হ্যাচারিতে ৬০টি নৌকায় ১০০ বালতি ডিম ও শাহ মাদারী হ্যাচারিতে ৩০টি নৌকায় ৬০ বালতি ডিম এনেছে। প্রতি বালতির ওজন ১৫ কেজি। এ পর্যন্ত ২ হাজার ৪০০ কেজি ডিম দুটি হ্যাচারিতে এসেছে। সময় যত বাড়বে, ডিমের পরিমাণ তত বাড়বে।

জয়নিউজ/তালেব/আরসি

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...