ক্রিকেট ধ্বংসে ‘ষড়যন্ত্রকারী’দের খুঁজে বের করব: পাপন

0

দেশের ক্রিকেটারদের ১১ দফা দাবি সম্বলিত ধর্মঘট ডাকাকে ষড়যন্ত্র বলেই মনে করছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

গতকাল দেশের প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটারদের ধর্মঘট ডাকার প্রেক্ষিতে আজ (মঙ্গলবার) সংবাদ সম্মেলনে বিসিবি সভাপতি বলেছেন, এটা একটা ষড়যন্ত্রের অংশ। ক্রিকেট ধ্বংসে ষড়যন্ত্রকারীদের শিগগির খুঁজে বের করব।

সংবাদ সম্মেলনে বেশ উত্তেজিত কণ্ঠেই বিসিবি সভাপতি বলেন, বাংলাদেশের ক্রিকেটকে অস্থিতিশীল করার চেষ্টা চলছে। ওরা এখন চায় ভারত সফরে যদি না যায়, তাহলে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হবে। এটা ষড়যন্ত্রের অংশ। কিছুদিনের জন্য সময় চাচ্ছি। সবকিছু প্রকাশ করা হবে।

শোরগোলপূর্ণ সংবাদ সম্মেলনে সংবাদকর্মীদের প্রশ্নের নির্দিষ্ট জবাব না দিয়ে নানা রকম উদাহরণ ও প্রেক্ষিত নিয়ে কথা বলেন বিসিবি সভাপতি।

তাঁর ভাষায়, ‘আমরা তো মেনে (দাবি) নিতে প্রস্তুত। এ বিষয়গুলো বলল না কেন। বললে তো আমরা মেনে নেব, তাই।’ সংবাদকর্মীদের প্রশ্নবানের একপর্যায়ে পাপন বলেন, ‘আপনারা যে কোত্থেকে কই চলে যান আমি বুঝি না।’

খেলোয়াড়দের ধর্মঘট নিয়ে বিসিবি সভাপতি বেশ কিছু কথাই বলেছেন। তাঁর ভাষায়, ‘বেশির ভাগ খেলোয়াড়ই জানে না আসল পরিকল্পনাটা কী! ওরা না জেনেই এসেছে। আসল পরিকল্পনা জানে দু-একজন খেলোযাড়।’

খেলোয়াড়দের উদ্দেশে তিনি সরাসরিই বলেছেন, ‘এমন ভাব দেখাচ্ছে যে আমরা কিছুই করছি না। তোমরা না খেললে আমাদের কি করার আছে।’ এরপর বিসিবির সাম্প্রতিক কিছু কাজের উদাহরণ টানেন নাজমুল হাসান।

বিসিবি সভাপতি বলেন, ‘ক্যাম্প শুরু হচ্ছে, প্লেয়াররা যদি না যায়, আমার কিছু বলার নাই। আমরা যেকোনো সময় আলোচনার জন্য প্রস্তুত। যখনই কিছু করতে যাই, তখনই এমন কিছু করা, আমার মনে হয় এগুলো দাবি না। দাবি পেশ না করে খেলা বন্ধ করে, এটা হয় কিভাবে! বিসিবি নিয়ে যা কিছু বলুক, আমাকে নিয়ে যা কিছু বলুক, কিন্তু খেলা বন্ধ! তারা এখনো দাবি পেশ করে নাই, কারণ তারা জানে আমরা মেনে নিব, তাই তারা যোগাযোগ পর্যন্ত করে নাই। এগুলো একটা ষড়যন্ত্রের অংশ।’

বিসিবি সভাপতি আরো বলেন, ধর্মঘট ডেকে খেলোয়াড়েরা এ পর্যন্ত সফল। দেশের ক্রিকেটের ভাবমূর্তি নষ্ট করতে সফল হয়েছে ক্রিকেটাররা। ওরা কথা বলার কোনো সুযোগই রাখেনি। সবই পরিকল্পনার অংশ।

তবে কাল ধর্মঘটে একাত্মতা ঘোষণা করা সব ক্রিকেটারই যে জেনেশুনে অংশ নিয়েছেন তা মনে করছেন না বিসিবি সভাপতি, ‘সবাই জেনেশুনে অংশ নিয়েছে বলে মনে হয় না। এটা আমাদের খুঁজে বের করা দরকার। এসময় তিনি ইংরেজিতে বলেন, ‘উই নিড টু ফাইন্ড আউট, প্লিজ গিভ মোর টাইম’।

জয়নিউজ/এসআই

সরাসরি আপনার ডিভাইসে নিউজ আপডেট পান, এখনই সাবস্ক্রাইব করুন।

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...