প্রশান্তির পরশ এনে দিতে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবে পিঠা উৎসব

0

শহরের এই যান্ত্রিক জীবনে একটু খানি প্রশান্তির পরশ এনে দিতে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবে আয়োজন করা হলো বর্ণিল পিঠা উৎসবের।

শনিবার (১ ফেব্রুয়ারি) সকালে প্রেস ক্লাবের এফ রহমান হলে পিঠা উৎসবের উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সভাপতি আলী আব্বাস।

উৎসবে হাতঝারা পিঠা, ফুলঝুরি, সুজির রসমঞ্জুরি, ডিমের পিঠা, বিবিখানা, দুধ চিতই, গোলাপ পিঠা, পাক্কন পিঠা, ভাপা পিঠা, বকুল ফুল পিঠা, পানখিলি পিঠাসহ বাহারি পিঠার সমাহার ছিল নজর কাড়ার মতো।

প্রেস ক্লাব সভাপতি আলী আব্বাসের সভাপতিত্বে এবং ক্রীড়া সম্পাদক নজরুল ইসলামের সঞ্চালনায় পিঠা উৎসবে স্বাগত বক্তব্য দেন প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী ফরিদ, সিনিয় সহসভাপতি সালাউদ্দিন মোহাম্মদ রেজা, গ্রন্থাকার সম্পদক রাশেদ মাহমুদ, অর্থ সম্পাদক দেব দুলাল ভৌমিক ও চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক ম. শামসুল ইসলাম।

ওয়েল গ্রুপের ব্যানারে আয়োজিত এ উৎসবে প্রধান অতিথি ছিলেন ওয়েল গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সিরাজুল ইসলাম কমু।

 

তিনি বলেন, পিঠা বাঙালি জাতির আবহমান খাদ্য সংস্কৃতির মধ্যে অন্যতম একটি। ছোটবেলায় গ্রামে পিঠা বানানোর জন্য আলাদা মাটির চুলা তৈরি করা হতো। সেই চুলায় পিঠা বানানো হতো। আমরা খড়ের উপর বসে সেই পিঠা খেতাম। এখন আর এসব দেখা যায় না।

মূলত পিঠার সংস্কৃতি যাতে হারিয়ে না যায় সে লক্ষ্যে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব পিঠা উৎসবের আয়োজন করে ওয়েল গ্রুপকে পাশে রাখে। এটা আমার জন্য আনন্দের বিষয়। চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব এই ধারাবাহিকতা আগামীতেও বজায় রাখেবে বলে আমি আশা করি।

অনুষ্ঠানে প্রেস ক্লাবের সদস্যদের সহধর্মিণীদের প্রত্যেকে ৫টি ভিন্ন ভিন্ন পদের পিঠা তৈরি করে পিঠা উৎসবে অংশগ্রহণ করে। বিকেলে সেরা পিঠা প্রস্তুতকারীকে তুলে দেওয়া হবে আকর্ষনীয় পুরস্কার।

জয়নিউজ/কামরুল/বিআর

সরাসরি আপনার ডিভাইসে নিউজ আপডেট পান, এখনই সাবস্ক্রাইব করুন।

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...