ভিজিএফের তালিকায় ইউপি সদস্যের পরিবারের ৫ জন

0

ফরিদপুরের নগরকান্দায় এক ইউপি সদস্য নিজের স্ত্রী, দুই ছেলেসহ পরিবারের ৫ সদস্যের নাম ভিজিএফের তালিকায় দেওয়ায় এলাকায় ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। বিদেশফেরত ভাই ও ভাইয়ের স্ত্রীর নামও রয়েছে তালিকায়।

ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলার কাইচাইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কবির হোসেন ঠান্ডু বর্তমান করোনাভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবেলায় ত্রাণের জন্য ভিজিএফ তালিকা প্রস্তুত করেন। সেই তালিকায় ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের বর্তমান ইউপি সদস্য জাহাঙ্গীর মাতুব্বর এর স্ত্রী, দুই ছেলে, আপন ছোট ভাই ও আরেক ভাইয়ের স্ত্রীর নাম রয়েছে।

ভিজিএফের তালিকায় দেখা গেছে, ইউপি সদস্য জাহাঙ্গীর মাতুব্বরের স্ত্রী মাহফুজা বেগমের নাম রয়েছে ২৭১ নাম্বার তালিকায়। তার দুই ছেলে সাব্বির ২৬৭ ও আরেক ছেলে ওমর সানি রয়েছে ২৬৮ নম্বর তালিকায়। ইউপি সদস্যের আপন ছোট ভাই যিনি সাম্প্রতিক সময়ে বিদেশ থেকে দেশে এসেছেন সেই বাবলু ও তার অপর বিদেশ ফেরত ভাই লাভলুর স্ত্রী রোজির নামও রয়েছে তালিকার যথাক্রমে ২৬৯ ও ২৭০ নাম্বারে।

স্থানীয়দের অভিযোগ, দরিদ্র অসহায় অনেক পরিবারের নাম তালিকায় না থাকলেও ইউপি সদস্য গোপনে তার পরিবারের ৫ জনের নাম দিয়ে অসহায় মানুষদের সঙ্গে অবিচার করেছেন। এ বিষয়ে স্থানীয় চেয়ারম্যানের যোগসাজশ রয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এছাড়া ইউপি সদস্য গত তিনদিন আগেও দুই বস্তা চাল বিক্রি করে দিয়েছে বলে জানা যায়।

এ বিষয়ে ইউপি সদস্য জাহাঙ্গীর মাতুব্বর বলেন, বর্তমান সময়ে খুব খারাপ অবস্থার মধ্যে আছি। আমি স্ত্রী, ছেলেদের নাম দিয়েছি যদি তারা কিছু পায়। এছাড়া আমার ভাই বিদেশ থেকে দেশে এসে খুব অসহায় হয়ে পড়েছে। তালিকায় তাদের নাম দিয়ে রেখেছি যদি সরকার কোনো কিছু দেয়।

কাইচাইল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কবির হোসেন ঠান্ডু বলেন, আমার ইউনিয়ন থেকে ১ হাজার ৯০০ ব্যক্তির তালিকা করা হয়েছে। দ্রুত তালিকা করার কারণেই অনেক নাম চলে এসেছে। তবে যাচাই-বাছাই করে নাম বাদ দিয়ে সঠিক ব্যক্তিদের ত্রাণ দেওয়া হবে।

জয়নিউজ/এসআই
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...