যে কারণে বার্সেলোনা ছাড়ছেন মেসি

0

এতদিন ধরে চলা সব জল্পনার অবসান ঘটিয়ে বার্সেলোনা ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ক্লাবটির সেরা তারকা ও অধিনায়ক লিওনেল মেসি। এই ক্লাবে আর থাকবেন না বলে বার্সেলোনা কর্তৃপক্ষকে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন তিনি।

মেসির এই সিদ্ধান্তের সত্যতা জানিয়ে খবর প্রকাশ করেছে ফুটবলের জনপ্রিয় গণমাধ্যম গোল ডট কম। এছাড়া আর্জেন্টিনার ক্রীড়াভিত্তিক গণমাধ্যম টিওয়াইসি স্পোর্টসের এক টুইটের বরাত দিয়ে বার্সা ব্লগরেন্স এ খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছে।

এদিকে সাংবাদিক আলফ্রেডো মার্টিনেজ টুইট করেছেন, আজ বার্সেলোনা ভক্তদের অতীব দুঃখের দিন। লিও মেসি জানিয়ে দিয়েছেন, তিনি আর বার্সোলোনায় থাকতে চান না। ইতিহাসের শ্রেষ্ঠ ফুটবলার ক্লাব ছাড়ার ঘোষণা দিলেন। এই সপ্তাহান্তে মেসি আর টেস্ট বা ট্রেনিংয়ে অংশ নেবেন না। তার সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত।

মেসির বার্সা ছেড়ে দেওয়ার গুঞ্জন অনেক আগে থেকেই বাতাসে ভাসছিল। তবে এবার চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের কথা জানালেন তিনি। বার্সেলোনার এমন দুঃসময়ে কেন হাল না ধরে ছেড়ে দিচ্ছেন সে প্রশ্ন জেগেছে বহু ফুটবলপ্রেমীদের মনে।

ঠিক কী কারণে বার্সা ছাড়তে চাচ্ছেন মেসি? সেই বিষয়ে ফুটবলের জনপ্রিয় গণমাধ্যম গোল ডট কম জানিয়েছে, করোনার কারণে বেশ বড়রকম আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে বার্সেলোনা। এরপর লা লিগার শিরোপার দৌড়ে রিয়াল মাদ্রিদের কাছে পেরে উঠেনি সেতিয়েনের শিষ্যরা। নাপোলিকে বিধ্বস্ত করে ফের জাত চেনালেও চ্যাম্পিয়নস লিগের ভরাডুবিতে দলের সেই আর্থিক ক্ষতি পুষিয়ে উঠতে পারবে না বার্সা।

তাছাড়া জার্মানির শক্তিশালী ক্লাব বায়ার্ন মিউনিখের কাছে ৮-২ গোলে নাস্তানাবুদ হয়ে ঐতিহ্যবাসী ক্লাবটির ইমেজ আরও ক্ষুণ্ণ হয়েছে। আর এসব ক্ষতি থেকে কাটিয়ে উঠতে মেসিকে বিক্রি করতে চায় বার্সা।

ক্লাবটির প্রেসিডেন্ট মারিয়া বার্তোমেউ চাচ্ছেন, বুড়োদের ছেঁটে ফেলে নতুন দল তৈরি করতে, যেখানে মেসিকেও রাখছেন তিনি।

এমন পরিস্থিতিতে যতই দিন গড়িয়েছে বার্তোমেউ-মেসির মধ্যকার সম্পর্কের আরও অবনতি হয়েছে। ক্লাবের একাধিক পরিচালকও নাকি চান, মেসি চলে যাক। সবমিলিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের পর থেকে বার্সা বোর্ডের সঙ্গে মেসির বনিবনা হচ্ছিল না।

বলা হচ্ছে, মেসির জন্য বিদায়ী মানপত্রের খসড়া তৈরি করেই রেখেছে বার্সা, যা প্রেসিডেন্ট বার্তোমেউয়ের ড্রয়ারে সংরক্ষিত আছে এখন। গত কয়েকদিন ধরে স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যমগুলোতে এসব তথ্য উঠে এসেছে।

এছাড়া বার্তোমেউয়ের পক্ষ নিয়ে বেশ কয়েকটি কাতালান প্রচারমাধ্যম শিরোনাম করেছে যে, বার্সেলোনার সাম্প্রতিক ব্যর্থতার জন্য মেসির আচরণগত সমস্যাই দায়ী। এমন খবরে বেশ কষ্ট পেয়েছেন মেসি।

তবে বার্সা প্রেসিডেন্টের একেবারে উল্টো মত নতুন কোচ রোনাল্ড কোম্যানের। তিনি গণমাধ্যমে সরাসরি বলেছিলেন, নতুন পরিকল্পনা বাস্তবায়নে মেসিকে সঙ্গে নিয়েই এগুতে চান। বিশ্বসেরা খেলোয়াড়কে হাতছাড়া করতে চান না।

এ বিষয়ে মেসির সঙ্গে কথাও বলেন কোম্যান। তবে কোচের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা মনে ধরেনি মেসির। মেসি সরাসরি জানিয়েছিলেন, বার্সায় নিজের ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত দেখছেন। বর্তমান দল নিয়েও অসন্তুষ্ট তিনি।

আর এসব কারণেই ২০ বছরের সঙ্গকে ছাড়তে চলেছেন এই আর্জেন্টাইন তারকা। সিদ্ধান্তে অটল থাকলে অচিরেই বার্সার সাবেক খেলোয়াড়ে পরিণত হতে চলেছেন মেসি।

প্রসঙ্গত, ২০০০ সালে মাত্র ১৩ বছর বয়সে বার্সেলোনার সঙ্গে চুক্তি হয় মেসির। এরপর থেকে ক্লাবটির অবিচ্ছেদ্য অংশ হয়ে ছিলেন তিনি। তাদের আলাদা হওয়ার ভাবনা কল্পনাও করা যায়নি এতদিন। এবার হয়ত তা সত্যিই হতে যাচ্ছে।

জয়নিউজ/এসআই
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...