প্রধানমন্ত্রীকে গণ-সংবর্ধনা দেবে কওমীপন্থি বোর্ড হাইয়াতুল উলইয়া

0

দশম জাতীয় সংসদের ২২তম অধিবেশনে কওমী মাদ্রাসাসমূহের সর্বোচ্চ স্তর দাওরায়ে হাদিসের সনদকে মাস্টার্স ডিগ্রি সমমান দিয়ে বিল পাস করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে গণ-সংবর্ধনা দেবে আল-হাইয়াতুল উলইয়া লিল জামিয়াতিল কাওমিয়া বাংলাদেশ।

সোমবার (১ অক্টোবর) দুপুরে দারুল উলূম মঈনুল ইসলাম হাটহাজারী মাদ্রাসায় অনুষ্ঠিত হাইয়াতুল উলইয়ার বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়েছে। এজন্য গঠন করা হয়েছে ১৫ সদস্যের একটি বাস্তবায়ন কমিটি। তবে কখন, কবে নাগাদ এ সংবর্ধনা দেওয়া হবে তার দিনক্ষণ সুনির্দিষ্ট করে জানানো হয়নি।

হাইয়াতুল উলইয়ার চেয়ারম্যান ও হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন কো-চেয়ারম্যান মাওলানা আশরাফ আলী, মাওলানা আবদুল হালীম বোখারী, মাওলানা মাহমুদুল হাসান, মুফতী মুহাম্মদ ওয়াক্কাস, মাওলানা আব্দুল কুদ্দুস, মুফতী ফয়জুল্লাহ, মাওলানা মাহফুজুল হক, মুফতী আরশাদ রাহমানী, মাওলানা ইয়াহইয়া মাহমুদ, মাওলানা আবদুল বছির ও মাওলানা নূরুল ইসলাম প্রমুখ।

সোমবার সন্ধ্যায় হাইয়াতুল উলইয়ার সদস্য মাওলানা বাহাউদ্দীন জাকারিয়া মুঠোফোনে এ প্রতিবেদককে জানান, প্রধানমন্ত্রীকে গণ-সংবর্ধনা দেয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে। তবে কবে দেয়া হবে সে বিষয়ে এখনও আলোচনা হয়নি। আশা করি ফের আরেকটি বৈঠক করে গণ-সংবর্ধনার দিনক্ষণ জানানো হবে। এজন্য ১৫ সদস্য বিশিষ্ট একটি বাস্তবায়ন কমিটি গঠন করা হয়েছে। এতে হাইয়াতুল উলইয়ার কো-চেয়ারম্যান মাওলানা আশরাফ আলীকে আহ্বায়ক করা হয়েছে। এছাড়া বৈঠকে বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালের ১১ এপ্রিল গণভবনে এক সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী কওমী মাদ্রাসার সর্বোচ্চ ক্লাস দাওরায়ে হাদিসকে মাস্টার্সের সমমান ঘোষণা করেন। এরপর মাদ্রাসার পরীক্ষা কার্যক্রম পরিচালনার জন্য ৬টি বোর্ড নিয়ে গঠিত হয় আল-হাইয়াতুল উলইয়া লিল জামিয়াতিল কাওমিয়া বাংলাদেশ। সংস্থাটির অধীনে এরই মধ্যে ২টি কেন্দ্রীয় পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

গত ১৩ আগস্ট সোমবার কওমী মাদ্রাসার দাওরায়ে হাদিসকে মাস্টার্সের সমমান সংক্রান্ত আইন মন্ত্রিসভায় অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এরপর ১৯ সেপ্টেম্বর বুধবার জাতীয় সংসদে বিলটি পাসের প্রস্তাব করেন শিক্ষামন্ত্রী নূরুল ইসলাম নাহিদ। স্পিকার শিরিন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদ অধিবেশনে বিলটি পাসের আগে জনমত যাচাই ও বাছাই কমিটিতে পাঠানোর প্রস্তাব কণ্ঠভোটে নাকচ হয়ে যায়।

 

জয়নিউজ/জুলফিকার

সরাসরি আপনার ডিভাইসে নিউজ আপডেট পান, এখনই সাবস্ক্রাইব করুন।

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...