বিবিসির ১০০ নারীর তালিকায় দুই বাংলাদেশি

0

বিট্রিশ ব্রডকাস্টিং করপোরেশনের (বিবিসি) এবারের ১০০ নারীর তালিকায় ঠাঁই পেয়েছেন  রিনা আক্তার ও রিমা সুলতানা রিমু নামে বাংলাদেশের দুই নারী।

সারাবিশ্বে যেসব নারী পরিবর্তন আনতে নেতৃত্ব দিয়ছেন এবং মহামারি করোনার এই কঠিন সময়েও তাদের কাজের মাধ্যমে নিজেদের আলাদা করতে সক্ষম হয়েছেন তাদের রাখা হয়েছে এ তালিকায়।

তালিকায় স্থান পাওয়া রিনা আক্তার সম্পর্কে বিবিসি জানিয়েছে, মাত্র আট বছর বয়সে রিনাকে তার এক আত্মীয় পতিতালয়ে বিক্রি করে দিয়েছিল।

সেখানেই তিনি বেড়ে ওঠেন ও পরে যৌনকর্মীতে পরিণত হন। কিন্তু এখন তিনি অন্য যৌনকর্মীদের জীবনমানের উন্নয়নে কাজ করছেন।

করোনাভাইরাস মহামারির সময়ে রিনা ও তার টিম ঢাকায় প্রতি সপ্তাহে অন্তত চারশ যৌনকর্মীকে খাবার সরবরাহ করেছেন। এসব যৌনকর্মী মহামারির কারণে চরম অর্থনৈতিক দুরবস্থায় পড়েছেন।

রিনা আক্তার বলেন, লোকজন আমাদের পেশাকে ছোট করে দেখ। কিন্তু আমরা এটি করি খাবার কেনার জন্য। আমি চেষ্টা করছি যাতে এই পেশার কেউ না খেয়ে থাকে এবং তাদের বাচ্চাদের যেন এ কাজ করতে না হয়।

অন্যদিকে রিমা সুলতানা রিমু একজন শিক্ষক এবং তিনি কক্সবাজার ভিত্তিক ইয়াং উইমেন লিডার্স ফর পিস-এর একজন সদস্য।

রিমা মানবিক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করেছেন রোহিঙ্গা শরণার্থী পরিস্থিতি মোকাবেলায়। রোহিঙ্গা শরণার্থী বিশেষ করে নারী ও শিশু যাদের শিক্ষার সুযোগ নেই তাদের জন্য লিঙ্গ সংবেদনশীল ও বয়সভিত্তিক স্বাক্ষরতা কার্যক্রম পরিচালনা করেছেন তিনি।

এছাড়া রেডিও ব্রডকাস্ট এবং থিয়েটার পারফরম্যান্সের মাধ্যমে নারী, শান্তি ও নিরাপত্তা বিষয়ে জাতিসংঘের সিদ্ধান্তগুলো সম্পর্কে সচেতনতা তৈরিতেও রিমা কাজ করেছেন।

রিমা বিবিসিকে বলেন, আমি বাংলাদেশে লিঙ্গ সমতা আনতে অঙ্গীকারাবদ্ধ। অধিকার আদায়ের জন্য নারীর শক্তিতে আমি বিশ্বাস করি।

জয়নিউজ/পিডি

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...