ওড়িশা, উড়িষ্যা না ওডিসা?

মন্তব্য প্রতিবেদন

0

ভারতের প্রসিদ্ধ রাজ্য ওড়িশা। ওড়িয়া ভাষায়- ଓଡ଼ିଶା, ভারতের পূর্ব উপকূলে অবস্থিত একটি রাজ্য। ভূবনেশ্বর যার রাজধানী। ফণী ঘূর্ণিঝড়ের সংবাদ লিখতে গিয়ে এই নামটি সপ্তাহজুড়ে বারবার এসেছে গণমাধ্যমে। ওড়িশা শব্দটি বাংলা বানানে লিখতে গিয়ে দেখা গেছে নানা মত।

ওড়িশা রাজ্যের অন্যতম আকর্ষণ পুরী। রাজ্যটি পর্যটকমহলে অত্যন্ত প্রসিদ্ধ। ওড়িয়া এ রাজ্যের প্রধান ভাষা। ওড়িশায় মোট ৩টি বিভাগ ও ৩০টি জেলা রয়েছে। ওড়িশার উত্তরে ঝাড়খণ্ড, উত্তর-পূর্বে পশ্চিমবঙ্গ, পূর্বে বঙ্গোপসাগর, দক্ষিণে অন্ধ্র প্রদেশ ও পশ্চিমে ছত্তিসগড়।

ইংরেজি বানানে যা Odisha, বাংলা পত্রিকায় তা ‘ওড়িশা’ লেখা সিদ্ধ। আবার ঐতিহ্যগতভাবে বাংলাদেশের পত্রিকায় উড়িষ্যা লেখাটাই অধিক যুক্তিযুক্ত।

জানা গেছে, ২০১০ সালে লোকসভার একটি আইনের মাধ্যমে সংবিধান সংশোধনে Orissa পরিবর্তন করে Odisha করা হয়েছে। ভারতের আনন্দবাজার পত্রিকা ও সংবাদ প্রতিদিনসহ অনেকেই সম্প্রতি লিখেছে ওড়িশা। কিন্তু শনিবার (৪ মে) বাংলাদেশের দু’টি জাতীয় দৈনিকে ‘ওডিশা’ লেখা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

বাংলাদেশের প্রবীণ সাংবাদিক মোজাম্মেল হোসেন মঞ্জু জানান, বাংলায় এখন লেখা যেতে পারে ‘ওড়িশা’। আমার মতে, বাংলায় উড়িষ্যাও লেখা যেতে পারে। ভারতে ইংরেজিতে Odisha যেহেতু হিন্দিতে उड़ीसा তাই বাংলায় ওড়িশাই হবে।

পশ্চিমবঙ্গের সিনিয়র সাংবাদিক দীপঙ্কর চক্রবর্তী জানান, ওডিশা অবশ্যই নয়। ওটা বাংলায় ওড়িশা লেখা হয়, বলাও হয়। আগে পশ্চিমবঙ্গের বাঙালি হিসেবে আমরা উড়িষ্যা লিখতাম, বলতামও। তখন ওখানকার মানুষদের বলা হত উড়িয়া। এখন বলা হয় ওড়িয়া।

জানা গেছে, বাংলার শেষ স্বাধীন নবাব সিরাজ-উদ-দৌলা বাংলা, বিহার, উড়িষ্যা, আসামের মতো এই জনপদের নাম দিয়েছিলেন “বঙ্গ”। তার অনেক আগে আর্যরা “বঙ্গ” বলে এই অঞ্চলকে অভিহিত করত। ব্রিটিশ শাসনামলে যাকে বারবার ‘বেঙ্গল’ বলা হয়েছে। সেই বেঙ্গলকে কিন্তু আমরা ‘বাংলা’ হিসেবেই ডাকি। সে হিসেবে উড়িষ্যা শব্দটিও আমাদের লোকজ-প্রচলিত উচ্চারণে ‘ওডিসা’ হওয়ার কথা নয়। এর পেছনে আরো একটি যুক্তি আছে।

কী সেই যুক্তি? বাংলার অনেকগুলো বর্ণের ইংরেজি ফনেটিক নেই। যেমন- “য”। ইংরেজিতে ‘যুবরাজ’ বানানটি লিখতে তাই আমরা লিখি Yubraj বা যুধিষ্ঠির শব্দটি ইংরেজিতে হয়ে যায় Yudhishthira! ঠিক তেমনি বাংলা ব্যঞ্জনবর্ণের ‘ড়’ ইংরেজিতে লেখা যায় না। কারণ ইংরেজরা এই ‘ড়’ উচ্চারণ করতে পারে না। ফলে উড়িশা উচ্চারণে ইংরেজদের মুখের ভাষার সুবিধার্থে D নির্ধারণ করা হয়েছে ফনেটিকালি। কিন্তু বাংলাদেশসহ পশ্চিমবঙ্গের বাংলাভাষীরা কেন ওডিসা’র মতো বিকৃত উচ্চারণ করবো?

জয়নিউজ/আরএন/এমজেএইচ
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...