পাকিস্তানের হুঁশিয়ারি: অবৈধ সিদ্ধান্ত কাশ্মীরের জনগণ মেনে নেবে না

0

ভারত অধিকৃত জম্মু-কাশ্মীর ইস্যুতে রাজ্যের বিভক্ত হওয়ার বিষয়টি এবং সংবিধান পরিবর্তনের যে অবৈধ সিদ্ধান্ত কাশ্মীরের জনগণ কোনোভাবেই মেনে নেবে না বলে সাফ জানিয়ে দিলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তিনি বলেন, এতদিন পাওয়া সুবিধাগুলো থেকেও বঞ্চিত হলো কাশ্মীরের মানুষ।

সোমবার (৫ আগস্ট) পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ভারতের এ পদক্ষেপ ‘অবৈধ’ ও ‘একতরফা’। কাশ্মীরের প্রতি একতরফা পদক্ষেপে পারমাণবিক শক্তিধর দুই প্রতিবেশী দেশের মধ্যে সম্পর্ক আরো খারাপ হবে।

ইমরান খান জানিয়েছেন, দিল্লি একতরফা সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কাশ্মীরের মানুষ ও পাকিস্তান কোনোভাবেই ভারত সরকারের এমন সিদ্ধান্ত মেনে নেবে না। ভারতের এ পদক্ষেপের মোকাবেলা করবে পাকিস্তান।

জম্মু ও কাশ্মীরের স্বায়ত্তশাসন ও বিশেষ মর্যাদা বাতিল করে ভারত সরকার ‘জাতিসংঘের নির্ধারিত নীতিমালা লঙ্ঘন করেছে’ বলেও দাবি করেন ইমরান খান।

পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কোরেশি হুঁশিয়ারি দিয়েছেন, জাতিসংঘ, অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কো-অপারেশন (ওআইসি), মানবাধিকার সংগঠন এবং বন্ধু রাষ্ট্রগুলো এ বিষয়ে চুপ থাকবে না।

কূটনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, ৩৭০ ধারা বিলোপে দেশে ও দেশের বাইরে ধাক্কা সামলাতে হতে পারে মোদি সরকারকে। ভারত সরকারের এ সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে জম্মু-কাশ্মীরের সব বিরোধীদল একজোট হয়েছে।

জয়নিউজ/আরসি

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...