বান্দরবানে চীন ফেরত এক নারীসহ ৫ জন কোয়ারেন্টাইনে

0

বান্দরবানে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে চীন ফেরত এক নারীসহ একই পরিবারের পাঁচজনকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

তাদের সদর হাসপাতালের একটি কক্ষে আলাদাভাবে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল কর্মকর্তা ডা. প্রত্যুষ পাল।

বুধবার (১৮ মার্চ) বিকালে এ খবর নিশ্চিত করেছেন তিনি।

কোয়ারেন্টাইনে থাকা এরা হলেন-চীন ফেরত নারী এনজেলিনা খেয়াং এবং একই পরিবারের উপজেলার গুংরু আগা খেয়াংপাড়ার চার বাসিন্দা।

সিভিল সার্জন ডা. অংসুই প্রু মারমা জয়নিউজকে বলেন, চলতি মাসের ১৫ মার্চ চীনের ম্যাকাও শহর থেকে বাংলাদেশে আসেন এনজেলিনা খেয়াং। চীন থেকে ফিরে মঙ্গলবার মেয়েটি বান্দরবান ফিরেছিল। শহরের প্রবেশদ্বার রেইছা চেকপোস্টে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তাকে সনাক্ত করে সদর হাসপাতালে পাঠায়। দায়িত্বরত চিকিৎসকরা তাকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার কথা বলেছিল। কিন্তু সে কোয়ারেন্টাইন মানেনি। তাই গ্রামবাসীর প্রতিরোধে প্রশাসন, পুলিশ এবং স্বাস্থ্যবিভাগের লোকজন ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকেসহ পরিবারের পাঁচজনকে সদর হাসপাতালের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে এনে রাখা হয়েছে। তারা কেউই অসুস্থ নয়।

তারপরও সকলের নিরাপত্তার স্বার্থে চীন ফেরত নারীসহ পরিবারের সকলকে কোয়ারেনটটাইনে এনে রাখা হয়েছে। করোনাভাইরাস প্রতিরোধে বান্দরবান সদর হাসপাতালের পার্শ্ববর্তী নবনির্মিত নার্সিং কলেজে ১শ’ জনের জন্য আইসোলেশন ইউনিট প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

এদিকে বুধবার দুপুরে সদর হাসপাতালে গিয়ে দেখা গেছে, করোনাভাইরাস প্রতিরোধে আইসোলেশন ইউনিট প্রস্তুত করা হচ্ছে। নার্সিং কলেজের একটি অংশে আইসোলেশন ইউনিট খোলা হলেও প্রয়োজনীয় কোনো সরঞ্জাম নেই। কোনোরকম ১০টি বেট প্রস্তুত করা হয়েছে। দায়িত্বরত দুজন চিকিৎসক এবং সদর হাসপাতালের কয়েকজন স্টাফ, নার্স বেডগুলো প্রস্তুত করছেন।

অপরদিকে জেলার লামা এবং রোয়াংছড়ি উপজেলায়ও চীন, হংকং ফেরত আরও কয়েকজন প্রবাসী দেশে ফিরেছেন বলে জানা গেছে।

বিষয়টি স্বীকার করে ডা. প্রত্যুষ পাল বলেন, চীন ফেরত নারীসহ পরিবারের পাঁচজনকে আলাদা একটি কক্ষে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে তাদের খাবার সামগ্রি খেয়াং কমিউনিটি সরবরাহ করবে বলে জানিয়েছে।

তারপরও হাসপাতালের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। আইসোলেশন ইউনিট খোলা হলেও প্রয়োজনীয় সরঞ্জামের অভাব রয়েছে।

ইতোমধ্যে তিনিসহ সদর হাসপাতালের দুজন করোনাভাইরাস বিষয়ক ট্রেনিং করে এসেছেন ঢাকায় স্বাস্থ্য বিভাগের তত্ত্বাবধানে।

জয়নিউজ/আলাউদ্দিন/বিআর

সরাসরি আপনার ডিভাইসে নিউজ আপডেট পান, এখনই সাবস্ক্রাইব করুন।

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...